৪ হাত ৪ পা নিয়ে জন্ম: নবজাতকের ভেতরে আরো ১ শিশু!

 

পশ্চিমাঞ্চল অনলাইন ডেস্ক রিপোর্ট:রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগে চিকিৎসাধীন আছে চার হাত-পা ওয়ালা তিনদিনের এক শিশু। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন ওই শিশুর শরীরে আরো একটি শিশু আছে এবং সেটিও ভালো আছে।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে কর্তব্যরত ইন্টার্ন চিকিৎসক মহিদুল হাসান মারুফ জানিয়েছেন, দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার মুকুন্দপুর গ্রামের বাবলা মিয়ার স্ত্রী রুনা লায়লা বেগম গত বৃহস্পতিবার দুপুরে দিনাজপুরের কাহারোলের একটি ক্লিনিকে বাচ্চাটি প্রসব করেন। বাচ্চাটি চার পা এবং চার হাত বিশিষ্ট। দিনাজপুর থেকে শুক্রবার রাতে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করার পর পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে শিশু সার্জারি ওয়ার্ডে নেওয়া হয়েছে।

শিশু ওয়ার্ডের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, শিশুটির শরীরে আরো একটি শিশু আছে। যার শুধু হাত পা দেখা যাচ্ছে। ওই শিশুটিও ভালো আছে। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর যদি সম্ভব হয় এখানেই অপারেশন করা হবে। তা না হলে তাকে ঢাকায় পাঠানো হবে বলেও জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রিন্সিপাল ডা. নুরুন নব্বী লাইজু এ ব্যাপারে বলেন, শিশুটির মা প্যারাসাইটিক টুইন রোগে আক্রান্তের কারণে শিশুটির শরীরের গঠন এমন হয়েছে। শিশুটির শরীরে আরো একটি শিশু আছে। যার শুধু হাত পা দেখা যাচ্ছে। ওই শিশুটিও ভালো আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *