সরকার দেশকে গভীর সংকটে নিপতিত করেছে: ফখরুল

পশ্চিমাঞ্চল রিপোর্ট:সরকার দেশকে গভীর সংকটে নিপতিত করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার মানুষের মৌলিক মানবাধিকার হরণ করে কর্তৃত্ববাদী ও ফ্যাসিবাদী দুঃশাসন অব্যাহত রেখে দেশকে গভীর সংকটে নিপতিত করেছে।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন। মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার বিএনপিসহ বিরোধী নেতাকর্মীদেরকে গুম, খুন ও অপহরণ, বানোয়াট মামলা দিয়ে গ্রেফতার করে রিমান্ডে নিয়ে নির্যাতনের মাত্রা এতটাই তীব্র মাত্রা ধারণ করেছে যে, দেশে যেন এখন জংলি শাসন কায়েম হয়েছে।

এসময় ফখরুল অভিযোগ করে বলেন, সরকারের দমন-নিপীড়নের ধারাবাহিকতায় পাবনা জেলা জাতীয়তাবাদী যুবদলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান শেখকে গত কয়েকদিন আগে গুম করা হয়, সোমবার তার মরদেহ উদ্ধার করে জনগণ। এছাড়া ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য হেলাল আহমেদ, হালিম ফকির এবং সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সদস্য সৈয়দ মেহেদী হাসানকে গ্রেফতার করে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, প্রহসনের নির্বাচন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ক্ষমতার মসনদ জোর করে ধরে রাখতে ক্ষমতাসীনরা এখন আরও বেপরোয়া আচরণ শুরু করেছে। ক্ষমতার দম্ভে আওয়ামী সরকার জুলুম নির্যাতন চালাতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও দলীয় সন্ত্রাসীদের লেলিয়ে দিচ্ছে বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর।

মির্জা ফখরুলের মতে, গণতন্ত্র হচ্ছে শান্তি ও সহাবস্থানের পূর্বশর্ত। প্রকৃত গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে পারলেই আইনের শাসন ও মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে। সরকারের সময় ফুরিয়ে এসেছে। তারা আর জনগণের অধিকার ছিনিয়ে নিতে পারবে না। বর্তমান স্বৈরাচারী শাসকদের পতন ঘটাতে জনগণ এখন আরও