স্টাফ রিপোর্টার: হাসপাতালে যথেষ্ট অক্সিজেন থাকা সত্ত্বেও রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় অনেকেই অক্সিজেন থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের অক্সিজেনের চাহিদা পূরনের লক্ষ্যে “সংযোগ- কানেকটিং পিপল” এর চুয়াডাঙ্গা মেডিকেল হাব’র পক্ষ থেকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে দুইটা অক্সিজেন কনসেনট্রেটর উপহার স্বরুপ প্রদান করা হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা এ এস এম ফাতেহ্ আকরামের নিকট অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর দুইটি হস্তান্তর করেন সংযোগের চুয়াডাঙ্গা জেলা সংযোজক শাহরিয়ার সিয়াম ।
চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর হস্তান্তত অনুষ্ঠানে সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার বলেন, “সংযোগ কানক্টিং পিপল চুয়াডাঙ্গা মেডিকেল হাবকে অসংখ্য ধন্যবাদ সদর হাসপাতালে দুইটা কনসেন্ট্রেটর আমাদের উপহার দেওয়ার জন্য।আমরা সবাই এভাবে এগিয়ে আসলে চুয়াডাঙ্গার জনসাধারন শ্বাস কষ্ট থেকে মুক্তি পাবে। সদর হাসপাতালে পর্যাপ্ত অক্সিজেন থাকা সত্ত্বেও রোগীর চাপের বেড়ে যাওয়ায় সংযোগের দেওয়া কনসেন্ট্রেটর গুলো বড় সহযোগী হিসাবে কাজ করবে।এভাবে সকলে এগিয়ে আসলে আমরা রোগীর চাপ সামাল দিতে সক্ষম হব ইনশাআল্লাহ ।”

সংযোগের চুয়াডাঙ্গা হাবের সংযোজক শাহরিয়ার সিয়াম বলেন, সংযোগ  চুয়াডাঙ্গাতে সর্বপ্রথম জরুরী অক্সিজেন সেবা কার্যক্রম শুরু করে।এক মাসে প্রায় চুয়াডাঙ্গার অর্ধশত রোগীকে আমরা জরুরী অক্সিজেন সেবা প্রদান করেছি।কিন্তু সম্প্রতি করোনা চুয়াডাঙ্গাতে প্রভাব বিস্তার করেছে , হাসপাতালে রোগীর প্রচুর চাপ। এই পরিস্থিতিতে করোনা আক্রান্ত রোগীদের অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিতে সংযোগ কানেকটিং পিপল চুয়াডাঙ্গা মেডিকেল হাবের পক্ষ থেকে দুইটি অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর উপহার দেয়া হয়েছে।
সংযোগের প্রতিষ্ঠাতা প্রকৌশলী আহমেদ জাভেদ জামাল বলেন, করোনা এই মহামারিতে অক্সিজেন সংকট মোকাবেলায় সংযোগ বিভিন্ন জেলার হাসপাতালে অক্সিজেন সিলিন্ডার ও কনসেন্ট্রেটর উপহার প্রদান কর্মসূচী হাতে নিয়েছে।এরই ধারাবাহিকতায় চুয়াডাঙ্গাতে দুইটা অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর ও পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ৫ টা বড় অক্সিজেন সিলিন্ডার উপহার প্রদান করা হয়েছে।
“শ্বাসকষ্টে থাকবেনা বাংলাদেশ ” এই স্লোগানকে সামনে কাজ কাজ করছে সংযোগ। প্রায় ৩৬ টি জেলাতে আলো ছড়াচ্ছে সংযোগের স্বেচ্ছাসেবীরা।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংযোগের চুয়াডাঙ্গা ইমার্জেন্সি রেসপন্স টিমের সদস্য আসিমুজ্জামান, নাঈম, আবীর, তানজিল, আশিক, রাজন সহ অন্যান্যরা।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *