স্টাফ রিপোর্টার:সারাদেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপর হামলা, অত্যাচার নির্যাতন ও অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে চুয়াডাঙ্গায় গণঅবস্থান ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা শাখা। গতকাল শনিবার সকাল ১০টায় শহরের চৌরাস্তা মোড়ের শহীদ হাসান চত্বরে “সাম্প্রদায়িকতা রুখো, বীর বাঙ্গালী জাগো” প্রতিপাদ্যে ঘণ্টাব্যাপী এ কর্মসূচি পালন করে তাঁরা। বিক্ষোভ সমাবেশে, গুজব ছড়িয়ে হিন্দুদের বাড়িতে অগ্নিসংযোগ, নারী নির্যাতন, হিন্দু ছাত্রদের ছাত্রত্ব বাতিলের অপপ্রয়াস, অধ্যাপক কুশল চক্রবর্তীকে হত্যার হুমকি, ধর্মপ্রাণ শহীদুন্নবী জুয়েলকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যা, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ও সভা সমাবেশে অন্য ধর্মের প্রতি অব্যাহত কটূক্তির প্রতিবাদ ও সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন, কমিশন ও সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয় গঠনের দাবি জানানো হয়।

            বিক্ষোভ সমাবেশে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক হেমন্ত কুমার সিংহ রায়ের পরিচালনায় উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ চুয়াডাঙ্গা জেলা কমিটির সভাপতি ডা. মার্টিন হীরক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত কুমার সিংহ রায়, সদর উপজেলা কমিটির সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র বিশ্বাস, চুয়াডাঙ্গা পৌর শাখার সভাপতি বিধু রঞ্জন চাকী, সাধারণ সম্পাদক রাজেশ পাল, দেবনাথ শান্ত প্রমূখ।

এসময় বক্তারা বলেন, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর অত্যাচার নির্যাতনের ঘটনার বিচার না হওয়ায় বারবার এর পুনরাবৃত্তি হচ্ছে। তাই অবিলম্বে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সুরক্ষায় সংখ্যালঘু কমিশন ও মন্ত্রণালয় গঠনের পাশাপাশি সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন করতে হবে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *