যশোরে আরও ১৬ জনের মৃত্যু

যশোর প্রতিনিধিঃযশোরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ও উপসর্গ নিয়ে আরও ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এই মৃতদের মধ্যে আক্রান্ত হয়ে ৬ জন এবং উপসর্গ নিয়ে ১০ জন মৃত্যুবরণ করেন। এর আগে রোববার আক্রান্ত হয়ে ও উপসর্গ নিয়ে মারা গিয়েছিল ১৭ জন। এছাড়াও গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ২৮৬ জনের। ৮২০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে সনাক্তের এই সংখ্যা পাওয়া গেছে। এদিকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গের রোগীদের চাপ অব্যাহত রয়েছে। ১৪০টি শয্যার বিপরীতে রোগী ভর্তি রয়েছেন ২১২ জন।
সোমবার যশোর সিভিল সার্জন অফিসের তথ্য কর্মকর্তা ডা. মো. রেহেনেওয়াজ জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলার ৮২০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৮৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে যবিপ্রবির জিনোম সেন্টারে ৪৪৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৮৬ জন করোনা পজিটিভ রোগী শনাক্ত হয়েছেন। খুলনা মেডিকেল কলেজে ৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২জন, জিন অ্যাক্সপার্টের মাধ্যমে ১০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৪ জনের এবং র্যাপিড এন্টিজেন টেস্টে ৩৬২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৯৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের হার প্রায় ৩৫ ভাগ। এই সময়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা ১৭৫। জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছেন ১৩ হাজার ৫১৮ জন, সুস্থ হয়েছেন ৭ হাজার ৪৬৯ জন। এদিকে, যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত রোগীর চাপ অব্যাহত রয়েছে। সোমবার এখানে ১৪০টি শয্যার বিপরীতে রোগী ভর্তি রয়েছেন ২১২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় এখানে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ১০ জন।
যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আরিফ আহমেদ জানিয়েছেন, করোনায় আক্রান্ত হয়ে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৬ জন। এছাড়া উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে ১০ জনের। যশোর হাসপাতালে করোনা রোগীদের জন্য নির্ধারিত রেড জোনে এখন ভর্তি আছেন ১২৬ জন। এখানে শয্যা সংখ্যা ১১৮। তবে করোনা রোগের উপসর্গ নিয়ে ইয়েলো জোনে ভর্তি রয়েছেন ৮৬ জন। এখানে শয্যা সংখ্যা মাত্র ২২। অর্থাৎ রেড ও ইয়েলো জোনে মোট ১৪০টি শয্যা থাকলেও রোগী ভর্তি রয়েছে ২১২ জন। হাসপাতালের রেড জোনে ৪০টি শয্যা বৃদ্ধির প্রক্রিয়া চলছে বলেও তিনি উল্লেখ করেছেন।