আফগানিস্তানের তালেবান সরকার এমনিতেই আর্থিক সংকটে রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে ভুলবশত তাজিকিস্তানে আফগান দূতাবাসের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ৬ কোটি টাকা পাঠিয়ে এখন পস্তাচ্ছে তালেবানরা। তবে ভুল বুঝতে পেরে তাজিকিস্তানের দূতাবাসকে এটি ফেরত দেওয়ার জন্য বলেছিল তারা। তবে তাজিকিস্তানের কর্তৃপক্ষ, যারা তালেবানের কট্টর সমালোচক, তারা অর্থ ফেরত দেওয়ার কোনও সম্ভাবনা অস্বীকার করেছে।

WION অনুসারে, তাজিকিস্তানের রাজধানী দুশানবে ভিত্তিক আবেস্তা নামে একটি ওয়েবসাইট দাবি করেছে যে তালেবানরা তাজিকিস্তানের আফগান দূতাবাসে ৮ লক্ষ ডলার স্থানান্তর করেছে। প্রতিবেদন অনুসারে, এই অর্থ আফগানিস্তানের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি আশরাফ ঘানির তাজিকিস্তানে শরণার্থী হিসাবে বসবাসরত শিশুদের স্কুল শিক্ষা প্রদানে ব্যয় করার কথা ছিল। ঘানি আফগানিস্তান থেকে পালিয়ে গেলে, তালেবান চুক্তিটি বাতিল করে, কিন্তু ভুলবশত, সেই পরিমাণ টাকা এখন তাজিকিস্তানে ভুলবশত স্থানান্তরিত করা হয়েছে। মাত্র কয়েক সপ্তাহ আগেই এই অর্থ স্থানান্তর করা হয়েছিল।

যদিও আফগানিস্তানের তালেবান পরিচালিত অর্থ মন্ত্রক থেকে এই বিষয়ে কোনও বিবৃতি দেওয়া হয়নি।আফগানিস্তানের তালেবান সরকার নভেম্বর মাস থেকে আর্থিক সমস্যায় ভুগছে। অর্থভাণ্ডার প্রায় তলানিতে। এই পরিস্থিতিতে তালেবানরা তাজিকিস্তানের কাছে এই অর্থ ফেরত চাইলে দেশটি তা প্রত্যাখ্যান করে এবং বলে যে এই অর্থ ব্যয় করা হয়েছে। তারা জানিয়েছে , বিদ্যালয় নির্মাণ না করলেও দূতাবাসের শিক্ষক-কর্মচারীদের জন্য এ অর্থ ব্যয় করা হয়েছে।

সূত্র : ডিএনএ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *