আন্দুলবাড়ীয়া থেকে এস এম নাসিম উদ্দিন : “বিশ্বনবীর অপমান সইবে’নারে মুসলমান, “লেগেছেরে লেগেছে রক্তে আগুন লেগেছে, “রক্তের বন্যায় ভেসে জাবে অন্যায়, “ফাঁসি চাই ফাঁসি চাই মাক্রোঁর ফাঁসি চাই, স্লোগান সহ ফ্রান্স বিরোধী একাধিক স্লোগান নিয়ে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট মহামানব মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সাঃ) কে নিয়ে কটুক্তি-ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে সমগ্র মুসলিম বিশ্বের ন্যায় জীবননগরের আন্দুলবাড়ীয়ায় আবারো বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে । গতকাল মঙ্গলবার বিকাল ৫ টায় আছরের নামাজের পর  আন্দুলবাড়ীয়া  “ইমাম-মুয়াজ্জিন কল্যান পরিষদের নেতৃবৃন্দ “মুহাম্মাদিয়া দারুল উলূম কওমী মাদ্রাসার ছাত্রবৃন্দ “তালহা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান “নিশ্চিন্তপুর পূর্ব ও পশ্চিম পাড়া যুব সমাজের নেতৃবৃন্দ কর্তৃক আয়োজিত বিশাল এই বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয় । বিক্ষোভ মিছিলটি আন্দুলবাড়ীয়ার প্রাণকেন্দ্র দোয়েল চত্বর থেকে যাত্রা করে আন্দুলবাড়ীয়া মিস্তিরি পাড়া মোড় প্রদক্ষিণ করে আবারো দোয়েল চত্বরে এসে মিলিত হয়। বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেন বিভিন্ন সংগঠন ও কমিটির নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ, হাজারো ধর্মপ্রাণ মুসল্লীবৃন্দ সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ। আন্দুলবাড়ীয়া ইমাম মুয়াজ্জিন কল্যান পরিষদের সভাপতি শাহ আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে মাওলানা তৌহিদুল ইসলামের উপস্থাপনাই  আলোচনা সভায় পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন বাজার জামে মসজিদের ইমাম আবু মুসা বক্তব্য রাখেন মুহাতামিম মুফতি সাব্বির রহমান, মাওলানা ওয়াহেদুজ্জামান, আব্দুল হান্নান, শাহ আনোয়ার হোসেন, মুহাতামিম মোস্তাফিজুর রহমান নাটোরি, সাবেক চেয়ারম্যান শাখাওয়াত হোসেন, সমাপণী বক্তব্য রাখেন আন্দুলবাড়ীয়া ইউপি চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল  ইসলাম মোক্তার। এ সময় বক্তরা বলেন, বিশ্বনবীর অপমান কোনো ভাবেই সহ্য করা হবে না,  বিশ্ব মানচিত্র থেকে ফ্রান্স কে মুছে দেওয়ার হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন এবং গ্যানিয়ার,টোটাল সহ ফ্রান্সের সকল পণ্য বয়কট করার ঘোষণা দেন, এ সময় ফ্রান্স সরকারের প্রধান মাক্রোঁর ছবি পোড়ানো হয়। আলোচনা শেষে দোয়া অনুষ্ঠিত হয় দোয়া পরিচালনা করেন আন্দুলবাড়ীয়া পুরাতন জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা সাইফুজ্জামান।