প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকলের জন্য টিকার ব্যবস্থা করেছেন: তোফায়েল আহমেদ


পশ্চিমাঞ্চল অনলাইন ডেস্ক রিপোর্টঃবাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, সাবেক মন্ত্রী ও ভোলা-১ আসনের সংসদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেছেন করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় আমাদের সকলকে সচেতন হতে হবে। এই মহামারিতে দেশে বহু লোকের মৃত্যু হয়েছে। করোনার মহামারি পরিস্থিতি মোকাবিলায় আমাদের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন এবং দেশের প্রত্যকটা মানুষকে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন। প্রধানমন্ত্রী অসহায়দের জন্য মানবিক সহায়তা চালু করেছেন।

 

শুক্রবার (০২ জুলাই) বিকালে ভোলা সদর উপজেলা পরানগঞ্জ বাজারে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ অফিসে উত্তর ভোলার ৫ ইউনিয়নের শতাধিক ছোট বাজারে লকডাউন সফল করতে ২৫ জন প্রতিনিধির এক ঘরোয়া বৈঠক ঢাকা থেকে ভার্চুয়ালি নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন তোফায়েল আহমেদ। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন ভোলা জেলা প্রশাসক মো. তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী।

 

এ সময় তিনি আরও বলেন, বিগত সময়ে ভোলায় করোনার পরিস্থিতি ভালো ছিলো। দেশের অন্য জেলার গুলোর মধ্যে শনাক্তের হার তুলনামূলক কম ছিলো। এই লকডাউনে মধ্যে যদি স্বাস্থ্য বিধি না মেনে বাড়িতে থেকে বেড় হন, মাক্স না পরেন তবে ভোলায় ও ব্যাপক হারে করোনার শনাক্তের হার বৃদ্ধি পাবে। এ সময় তিনি সকলে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সচেতন হয়ে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলা এবং টিকা নেওয়ার আহবান জানান।

 

এ সময় জেলা প্রশাসক মো. তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরীর বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে মানুষকে ঘরে থাকার জন্য সকল আয়োজন আমরা গ্রহণ করেছি। তাই আপনাদের সহযোগিতায় এই মহামারী মোকাবিলায় আমরা সক্ষম হব। লকডাউনের ওহেতুক বাজারে ঘুরাঘুরির না করার আহবান জানান তিনি।

কাঁচিয়া ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে স্থানীয় বাজার কমিটির সভাপতি-সম্পাদক, স্কুল শিক্ষক, ও এলাকার সুশীল সমাজের উপস্থিতে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মিজানুর রহমান, কাচিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ এর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নকিব, পরানগঞ্জ বাজার সমিতির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সাহাদাত হোসেন শাহিন প্রমুখ।