কার্পাসডাঙ্গা অফিস:দিনে দিনে রাজনৈতিক ভাবে গুরুত্বপূর্ন ইউনিয়ন হয়ে উঠেছে নাটুদাহ ইউনিয়ন আ:লীগ।রাজনৈতিক নানান সমীকরনে উত্তপ্ত নাটুদাহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের রাজনীতি অঙ্গন।নাটুদাহ ইউনিয়ন আ:লীগের সম্মেলনের পূর্বে প্রতিটি ওয়ার্ডের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের নাম ঘোষনা করা হলেও নাটুদাহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলনের দিন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক চুয়াডাঙ্গা ০১ আসনের এমপি সোলাইমান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন ও চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি চুয়াডাঙ্গা ০২ আসনের এমপি হাজী আলী আজগর টগর সহ অতিথিদের সামনে ওয়ার্ড কমিটি নিয়ে আপত্তি জানান বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী।যার পরিপ্রেক্ষিতে স্হগিত হয়ে যায় নাটুদাহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কমিটি। ও সেই সাথে ওয়ার্ড কমিটি নতুন করে যাচাই বাছাই করে তারপর কমিটি দেবার ঘোষনা দেন নেতৃবৃন্দ।যার পরিপ্রেক্ষিতে পরবর্তীতে দুএকজন বাদ ও পড়ে বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে। তবে নাটুদাহ ইউনিয়নের সম্মেলন হবার কথা থাকলেও করোনা ও নানাবিধ কারনে তা থমকে যায়।এর মধ্য চলে আসে নাটুদাহ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। আর এ নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন দেওয়া হয় বর্তমান চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিকে।এ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীকে হারাতে বিদ্রোহী প্রার্থীরা রয়েছে নির্বাচনী মাঠে। তবে সবচাইতে গুরুত্বপূর্ন বিষয় হলো যারা নিজেকে নৌকার একনিষ্ঠ কর্মী,জাতীর পিতার আর্দশের সৈনিক, রাজপথের ত্যাগী নেতা দাবী করে ও নাটুদাহ ইউনিয়নের সম্মেলনে সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক পদপ্রার্থী ছিল তারাই এখন প্রকাশ্য নৌকার প্রার্থীককে  হারাতে আওয়ামীলীগের প্রার্থীকে হারাতে  অন্য প্রার্থীর ভোট করছে। নাম না প্রকাশ করার শর্তে স্থানীয় অনেক আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা জানান যারা প্রকাশ্য নৌকার বিরোধীতা করে, জননেত্রী শেখ হাসিনার নৌকাকে হারাতে মরিয়া হয়ে উঠে সেই সব। কর্মীরা মানেনা আপনি মড়ল খ্যাত নেতারা যাতে কোন ভাবেই নাটুদাহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলনে পদ না পাই তার জোর দাবী তুলেছেন নাটুদাহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের অধিকাংশ নেতাকর্মী।তাঁদের দাবী যদি তারা এভাবে প্রকাশ্য নৌকার বিরোধীতা করে ভবিষ্যতে পদ পাই তবে তাদের দ্বারা আওয়ামীলীগের ত্যাগী নেতাকর্মীরা নির্যাতনের স্বীকার হবে ও দলের প্রতি অনীহা সৃষ্টি হবে।এখন ই চরম সুযোগ নামধারী এসব আওয়ামীলীগ নেতা নৌকার বিরোধী ভোট করাদের চিহ্নিত করা।এসব সুযোগসন্ধানী নামধারীদের নেতাদের নাটুদহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলনে পদ না দেওয়ার আহবান সহ প্রকৃত ত্যাগী নেতাকর্মীদের দলীয় পদ দেবার আহব্বান জানিয়েছেন নাটুদাহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের তৃনমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।