দামুড়হুদার জয়রামপুরের কাঠালতলা বাসস্ট্যান্ডে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে রক্ষা পেল না মসজিদ মার্কেটটি কিন্তু রক্ষা পেল নমে পাগলার ঝুঁকিপূর্ণ দুতালা ঘরটি

 

আনারুল ইসলাম,জয়রামপুর প্রতিনিধি:দামুড়হুদা-দর্শনা মহা সড়কের দু-পাসের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) শেষ রক্ষা হলো না কাঠালতলা মসজিদ মার্কেটটি কিন্তু রক্ষা পেলো ডুগডুগী মহাসড়কের পাশে থাকা নমে পাগলার ঝুঁকি পূর্ণ দুতলা ঘরটি। জানাগেছে গতকাল দামুড়হুদা উপজেলার জয়রামপুর কাঠালতলা বাসস্ট্যান্ড,ডুগডুগী বাজার,লোকনাথপুর বাসস্ট্যান্ড, জয়রামপুর চায়ের দোকান, স্কুল বটতলা, শেখ পাড়া,ও জয়রামপুর চৌধুরী পাড়া সহ দামুড়হুদা থেকে দর্শনা অভিমুখে মহা সড়কের দু-পাসের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ)। জয়রামপুর কাঠালতলা বাসস্ট্যান্ড এলাকা সহ সড়কের পাশে গড়ে ওঠা পাকা ও আধা পাকা দোকান সহ টোঙ্গ দোকান গুলো বুলডোজার দিয়ে ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়া হয়। অনেকে আবার নিজ থেকে তাদের স্থাপনা সরিয়ে নিচ্ছেন। এদিকে হাজারো অনুরোধেও শেষ রক্ষা পেলো না জয়রামপুর কাঠালতলা বাসস্ট্যান্ড জামে মসজিদ মার্কেটটি। কিন্তু রক্ষা পেলো ডুগডুগী মহাসড়কের পাশে থাকা ঝুঁকি পূর্ণ নমে পাগলার দুতলা ঘরটি।অথচ মহাসড়কের পাশে থাকা ঝুঁকি পূর্ণ দুতলা ঘরটির কারনে যে কোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। সেটা না ভেঙ্গে ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়া হলো কাঠালতলা মসজিদ মার্কেটটি এমনটাই বললেন এলাকার জন সাধারণ। এদিকে জয়রামপুর কাঠালতলা বাসস্ট্যান্ড এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত দোকানদাররা বলেন আমরা সকল দোকানদাররা যে সকল জায়গায় দোকান দিয়ে ছিলাম এবং মাসে মাসে যারা দোকান ভাড়া নিতো সেই সব অবৈধ সরকারি জমি দখলদারদের বিরুদ্ধে কি কোন আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে না। নাকি এই ভাবেই আবার কিছু দিন পর অবৈধ দখল দাররা নতুন করে আবার সরকারি জমি দখল করে দোকান নির্মাণ করবে ও মাসে মাসে মোটা অংকের মাসোহারা আদায় করবে। তাহলে কি এই সব অবৈধ দখল দাররা আইনের ধরা ছোঁয়ার বাইরে থেকে যাবে। এদিকে এলাকাবাসী ও ক্ষতিগ্রস্ত দোকানদাররা বলেন এইসব অবৈধ সরকারি জমি দখলদারদের বিরুদ্ধে অতিদ্রুত আইনগত শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক। এদিকে অবৈধ সকল স্থাপনা উচ্ছেদ না হওয়া পর্যন্ত মোট তিন দিন এ উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানানো হয় সওজের পক্ষ থেকে। ফায়ার সার্ভিস,বিদ্যুত বিভাগ, পুলিশ ও সওজের সমন্বয়ে গঠিত টিম এ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করছেন। এসময় বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় সড়কের দু-পাসের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়।