দর্শনা অফিসঃ দর্শনা-জয়নগর চেকপোষ্ট সড়কে বিজিবির চোরাচালান বিবোধী সফল অভিযান চালিয়েছে। এ অভিযানে ৩৩০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা সহ আটক করা হয়েছেআকন্দবাড়িয়ার আলোচিত মাদক ব্যাবসায়ী লালু, এনামুল ওরফে ইমাম ও রতন নামের তিন মাদক ব্যাবসায়ীকে। এ ঘটনায় মাদক ব্যাবসায়ীদের সাথে থাকা আরও ৪ জনকে পালাতক আসামী করে ৭ জনের বিরুদ্ধে মাদক আইনে দায়ের করা হয়েছে মামলা।বিজিবি জানায়, গত রোববার সাড়ে ৪টার দিকে ঝিনাইদহের মহেশপুর-৫৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনস্ত চুয়াডাঙ্গা জেলার জীবননগর উপজেলার জীবননগর নিমতলা বিওপির হাবিলদার হেলাল উদ্দিনের নেতৃত্বে ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি টহল দল নিজস্ব গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সীমান্ত শূন্য লাইন হতে আনুমানিক দেড় কিঃ মিঃ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে চুয়াডাঙ্গা জেলার দর্শনা উপজেলার আইসিপি দর্শনা ইনপোর্ট পাকা সড়কের পাশে কালভার্টের নিকট হতে মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় উক্ত স্থান হতে৩৩০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিলসহ চুয়াডাঙ্গা জেলা সদর উপজেলার দর্শনা থানাধীন বেগমপুর ইউনিয়নের আকন্দবাড়িয়া গ্রামের মাঝপাড়ার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে মাদক চোরাকারবারী সাজেদুল ইসলাম লালু (৩২),একই গ্রামের গাঙেরধার পাড়ার আলী আহম্মদের ছেলে এনামুল হক (২৯) ও রতন মিয়াকে (৩৪)আটক করে।আটককৃত আসামীকে মাদকদ্রব্যসহ চুয়াডাংগা জেলার দর্শনা থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। এছাড়াও গ্রামের মৃত খলিলুর রহমানের ছেলেহাবিবুর রহমান (৪২),আব্দুল মান্নানের ছেলে আব্দুল হালিম (২৫), মৃত বিষারতের ছেলে মিন্টু (৪০) ও মৃত জান মোহাম্মদের ছেলে আব্দুস সবুরকে (৪০) পলাতক আসামী হিসেবে দর্শনা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।বিষয়টি নিশ্চিত করে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সাংবাদিকদেরকে জানান ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পরিচালক মোহাম্মদ মেহেদী হাসান খান।#######

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *