ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃঝিনাইদহ পৌরসভার নান্দনিক মেয়র সাইদুল করিম মিন্টু ঝিনাইদহের ঐতিহ্যবাহী নবগঙ্গা নদীর সৌন্দর্য ও স্রোতের প্রবাহবেগ ঠিক রাখতে কচুরিপানা পরিষ্কার কাজের উদ্বোধন করেছেন। এই নবগঙ্গা নদীর ভেসে যেত মালামাল বোঝাই পালতোলা নৌকা। বিবাহের জন্য বরযাত্রী নৌকায় করে মাইক বাজিয়ে যেত কন্যার বাবা- মায়ের গাঁয়ে। কালের বিবর্তনে হারিয়ে গেছে সেই সমস্ত ঐতিহ্য। একসময় নদীতে জাল ফেলে মাছ ধরে অনেক পরিবার তাদের সংসার চালাতো। নবগঙ্গা নদী এখন মৃত প্রায় নেই আগের মতো প্রবাহমান স্রোত, চলে না পালতোলা নৌকা। নবগঙ্গা নদীর মাঝে এখন শুধুই কচুরিপানায় ভর্তি। এতো পরিমাণ কচুরিপানা যে কোন রকম পানি চোখে পড়ার মতো নেই পুরোপুরি সবুজ কচুরিপানা ভর্তি । নবগঙ্গা নদীর সৌন্দর্য বৃদ্ধি ও প্রবাহবেগ রক্ষায় নবগঙ্গা রক্ষা পরিষদ, ঝিনাইদহ ও সমমনা সামাজিক সংগঠনের কর্মকর্তা ও স্বেচ্ছাসেবকদের সাথে নিয়ে কচুরিপানা পরিষ্কার কাজের উদ্বোধন করেছেন। আজ সকাল ৬টায় জেলা প্রশাসক মহোদয়ের বাসভবনের নিচে ইকোপার্কের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া নবগঙ্গার কচুরিপানা পরিষ্কার কাজ শুরু করেছেন। পরিস্কার কাজে অংশগ্রহণ করেন বিশিষ্ট পরিবেশবিদ মাসুদ আহমেদ সনজু,নবগঙ্গা রক্ষা পরিষদ, ঝিনাইদহের আহবায়ক কে এম সাইফুজ্জামান শিমুল, কবি গুলজার হোসেন গরিব, নৃত্যালয় একাডেমির পরিচালক পাপ্পু, হেব্বি গ্রুপের সদস্যবৃন্দ,করোনাকালিন স্বেচ্ছাসেবক টিমের সদস্য জহিরুল ইসলাম আসিফসহ আরও অনেকে। মাসব্যাপী নবগঙ্গা নদীর কচুরিপানা পরিষ্কার করার কাজ অব্যাহত থাকবে।