স্টাফ রিপোর্টার: স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস-২০২১‌ উপলক্ষে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রোববার বেলা সাড়ে ১১ টায় জেলা প্রশাসকের সম্বেলন কক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে জেলা প্রশাসন। চুয়াডাঙ্গার জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকারের সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, দেশের জন্য বঙ্গবন্ধুকে জীবন দিতে হয়েছে। বাঙ্গালী জাতিকে মুক্তির পথ দেখিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। দেশের বিপথগামিরা মনে করেছিল বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করতে পারলেই বাংলাদেশকে ধ্বংশ করা যাবে। তাই ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বিপথগামিরা বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করে। আজ বঙ্গবন্ধু না থাকলেও সারা দেশের প্রতিটা ঘরে ঘরে বঙ্গবন্ধু তৈরি হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পুরনে তারই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিয়ে চলেছে।
ভার্চুয়াল আলোচনায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ সামসুল আবেদিন খোকন, পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকন, চুয়াডাঙ্গা সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যপক আজিজুর রহমান, পরিবার পরিকল্পনা উপপরিচালক দীপক কুমার সাহা প্রমুখ।
আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মনিরা পারভীন। আলোচনা সভার শুরুতে পবিত্র কোনআন তেলাওয়াত করেন কালেক্টরেট মসজিদের ঈমাম ক্বারী মো. কবীর আহমেদ, পবিত্র গীতাপাঠ করেন বাবু সুনিল মল্লিক, পবিত্র বাইবেল পাঠ করেন লিন্টন রয়। এরপার জাতীয় শোক দিবস ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে গাড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
আলোচনা সভা শেষে সংগীত প্রতিযোগীতা, আবৃত্তি প্রতিযোগীতা, রচনা প্রতিযোগীতা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতা ও কুইজ প্রতিযোগীতায় ৫৭ জন বিজয়ীদের মাঝে পুররস্কার বিতরণ করা হয়।
জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।
চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সহকারি অধ্যাপক মুন্সী আবু সাঈফের সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সাজিয়া আফরিন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আরাফাত সিদ্দিকসহ জেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ।