চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজে নারীর অধিকার ও সম্মান শীর্ষক সেমিনার

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজে “ইসলামে নারীর অধিকার, অবন্থান ও সম্মান শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২৪ মার্চ) বেলা ২টায় কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ এ সেমিনারের আয়োজন করে। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, চুয়াডাঙ্গা সরবারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড.একেএম সাইফুর রশিদ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ইসলাম নারীকে দিয়েছে সর্বোচ্চ সম্মান ও মর্যাদা। ইসলামের আগমনের আগে সামাজিকভাবে নারীদের কোনো মর্যাদাই ছিল না। নারীদের প্রতি করা হতো অমানবিক আচরণ। প্রাক ইসলামি যুগের দিকে তাকালেই তা অনুধাবন করা যায় যে, নারীর মর্যাদা প্রদানে ইসলামের অবদান কতবেশি। ছোট্ট একটি উপমাতেই তা সুস্পষ্ট হয়ে যাবে। আর তাহলো-‘অপমান বা পাপ মনে করে কন্যা শিশুদের জীবন্ত কবর দেয়া ছিল তৎকালীন সময়ের নিত্য দিনের ঘটনা। ইসলামের আগমনের আগে কন্যা শিশু জন্মদানকে পাপ বা অপমান মনে করা হতো। যে কারণে কন্যা জন্ম হওয়ার পর সে শিশুটির বেঁচে থাকার কোনো অধিকার ছিল না। সামাজিক মান-সম্মানের অজুহাতে ছোট্ট কন্যা শিশুকে জীবন্ত কবর দিয়ে দেয়া হতো।
সেমিনারে আলোচনা ও সভাপতিত্ব করেন ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক আব্দুল জব্বার। প্রাবন্ধিক হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও সাবেক শিক্ষক পরিষদ সম্পাদক সফিকুল ইসলাম। এ সময় কলেজের বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপক, সহকারি অধ্যাপক, প্রভাষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *