★আইসিইউ’তে প্রথম দিনে ভর্তি হলেন একজন:এইচডিইউ’তে তিনজন

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গাবাসীর দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন সদর হাসপাতালে আইসিইউ স্থাপনের।  সেই স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নিয়েছে। সেই সাথে আনোয়ারা নামের এক রোগীর ভর্তির মাধ্যমে শুরু হলো সদর হাসপাতালের আইসিইউ’র কার্যক্রম। এইচডিইউ’তে ভর্তি হয়েছে তিনজন রোগী।  ঢাকাস্থ বেসরকারি সংস্থা সাজেদা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ৪৪ জন জনবল নিয়ে আইসিইউ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে আইসিইউ’র কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।
সাজেদা ফাউন্ডেশনের চুয়াডাঙ্গার মুখপাত্র ইয়াছির আরাফাত বলেন, সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। আইসিইউ’র জন্য ১০ জন চিকিৎসক, ১৪ জন নার্স, ৭ জন যত্ন নেয়া সহকারি, ৬ জন পরিচ্ছন্নতাকর্মী, ৩ জন নিরাপত্তা প্রহরী, ৩ জন গ্রাহক সেবী ও ১ ন হিসাব রক্ষক থাকবে। আইসিইউতে শয্যা থাকবে ৬ টি এবং হাইডিফেন্ডেন্সি ইউনিটে শয্যা থাকবে ৮ টি। এখানে থাকবে ভেন্টিলেশন ব্যবস্থা, হাইফ্লো মেশিন ও বাইপ্যাট মেশিন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন ডা: এএসএম মারুফ হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন)  আবু তারেক,  পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ)’র চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি ডা. মার্টিন হীকর চৌধুরী, সদর হাসপাতালের সিনিয়র গাইনী কনসালটেন্ট ডা: আকলিমা খাতুন, সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. ফাতেহ্ আকরাম,চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামীলীগ এর সাংগঠিনিক সম্পাদক মুফতি মাসুদউজ্জামান লিটু সহ সাজেদা ফাউন্ডেশনের কিচিৎসক, নার্স ও অন্যান্য কর্মকর্তারা।
সাজেদা ফাউন্ডেশনের চুয়াডাঙ্গার মুখপাত্র ডা. ইয়াছির আরাফাত জানান, গতকাল শনিবার রাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আইসিউতে ভর্তি হয়েছে আনোয়ারা নামের ১ জন। অপরদিকে, হাই ডিফেন্ডেন্সি ইউনিটে ভর্তি হয়েছে ৩ জন। তাদের মধ্যে আছেন সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম ডালিম, সোসনে আরা এবং মনোয়ারা।