স্টাফ রিপোর্টার: অবশেষে চুয়াডাঙ্গা জেলা সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ ৯ সেপ্টেম্বর থেকে তাঁদের ডাকা পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত করেছে। গতকাল মঙ্গলবার চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আঞ্চলিক পরিবহন কমিটির সভা শেষে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ সিদ্ধান্ত জানিয়েছে তারা।
 চুয়াডাঙ্গা জেলা সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রসাসকের সম্মলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভার সিদ্ধান্ত ফলপ্রসূ হওয়ায় ৯ সেপ্টেম্বর থেকে তাঁদের ডাকা ধর্মঘট স্থগিত করা হয়েছে।
মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আঞ্চলিক সড়ক পরিবহন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার।
প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি।
সভায় চুয়াডাঙ্গা জেলা সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদরর দাবির আলোকে সিদ্ধান্ত হয় অবৈধ যান নসিমন, করিমন, আলমসাধু যাত্রী বহন করতে পারবে না। ইজিবাইক একটি নির্দিষ্ট সীমার মধ্যে চলাচল করবে।
এ সভায় চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আরাফাত রহমান, সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি হাবিবুর রহমান লাভলু, জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি আলী রেজা সজল, সাধারন সম্পাদক একেএম মঈন উদ্দিন মুক্তা, জেলা বাস-মিনিবার মালিক গ্রুপের সভাপতি সালাউদ্দীন, সাধারন সম্পাদক আবুল কালাম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বদর খান, জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপের সাধারন সম্পাদক সাইফুল হাসান জোয়ার্দ্দাার টোকন, জেলা বাস-ট্রাক সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন  সভাপতি এম জেনারেল ইসলাম, জেলা  সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন মন্ডল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি বলেন, সব রাস্তাগুলো একসাথে না নিয়ে একটি একটি করে সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা বেশি ভালো। পর্যায়ক্রমে সবগুলোই করা হবে। অবৈধ যান আঞ্চলিক সড়ক-মহাসড়কে উঠবে না। হাইকোর্টের যে নির্দেশনা আছে, তা বাস্তবায়ন করা হবে।
সভায় আলোচনার পর সকলের সম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়- অবৈধ যান নসিমন, করিমন, আলমসাধু যাত্রী বহন করতে পারবে না। ইজিবাইক একটি নির্দিষ্ট সীমার মধ্যে চলাচল করবে, ঝিনাইদহ মেহেরপুর রুটে অবৈধ যান চলাচল করতে পারবে না, আগামী ১৫ দিন পরে অন্য সড়কে আলোচনার মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এদিকে, এর আগে সকাল ১১টায় চুয়াডাঙ্গার আঞ্চলিক ৫টি সড়কে অবৈধ যান চলাচল বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন করে  চুয়াডাঙ্গা সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক  ঐক্য পরিষদ।  মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি হাবিবুর রহমান লাভলু, সাধারন সম্পাদক রিপন মন্ডলসহ পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতৃবৃন্দ। বক্তারা বলেন, দাবি না মানা হলে আগামী বৃহস্পতিবার থেকে পরিবহন ধর্মঘট পালন করা হবে। বক্তৃরা আরো বলেন, হাইকোর্টের   নির্দেশনা অনুযায়ী সড়কে সব ধরনের অবৈধ যান চলাচল নিষিদ্ধ থাকলেও চুয়াডাঙ্গা জেলায় সে নিয়ম মানা হচ্ছে না। যার কারণে একদিকে যেমন বাড়ছে দুর্ঘটনায় প্রাণহানির সংখ্যা, আরেকদিকে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পরিবহন শ্রমিকরা।