বঙ্গবন্ধুর জীবনী থেকে সততা ও ত্যাগের শিক্ষা নিতে হবেঃছেলুন এমপি
স্টাফ রিপোর্টারঃ১৫ ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৬তম শাহাদত বার্ষিকীতে চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগ এর দিনব্যাপী কর্মসূচীর  চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে সকাল ০৬:৩০ জাতীয় পতাকা, দলীয় পতাকা ও অঙ্গ সহযোগী এবং ভাতৃপ্রতিম সংগঠনের  পতাকা উত্তলন অর্ধনমিত করা হয় এবং কাল পতাকা উত্তোলন করা হয়।
০৬:৪০ মিনিটে বঙ্গবন্ধুর প্রতকৃতিতে  মাল্যদান করা হয়। চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ এবং সহযোগী এবং ভাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন এবং বাদ আসর আলোচনা সভা ও দোয়া মহাফিল  হয়।
চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের  সভাপতি  জাতীয় সংসদের সাবেক হুইপ  চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন’র সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভাপতির বক্তব্যে সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি বলেন,বঙ্গবন্ধুর জীবনী থেকে সততা ও ত্যাগের শিক্ষা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের ‘সোনার বাংলা’ গঠনে সকলকে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।
সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি আরও বলেন, আপনাদেরকে মনে রাখতে হবে, শুধু স্লোগান দিলে চলবে না, বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগকে জানতে হবে। আমি শুনেছি অনেকেই শোক দিবসকে স্বাধীনতা দিবস বলে বক্তব্য প্রদান করেন। এগুলো থেকে আমাদেরকে বেরিয়ে আসতে হবে। জাতির জনকের ইতিহাস, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও আওয়ামী লীগের ইতিহাস ভালো করে জানতে হবে। তাহলেই আমাদের জাতির পিতা, তাঁর পরিবার সহ সকল শহীদদের আত্মত্যাগ স্বার্থক হবে।
বঙ্গবন্ধু যে বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছেন তা শোষিত মানুষের বাসযোগ্য ভূমির জন্য। শুধু ভৌগলিক স্বাধীনতা জাতির জন্য যথেষ্ট পরিচয় নয়, মূল লক্ষ্য সাম্য-মৈত্রী- শান্তি ও প্রগতির জয়যাত্রা রচনা করা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর সে আরাধ্য জয়যাত্রার নেতৃত্ব দিচ্ছেন।
রাজনীতিতে সবাইকে পরিশুদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, “যারা একদিন ইতিহাসের চাকাকে উল্টো পথে পরিচালনা করেছে, ইতিহাস নিয়ে মিথ্যাচার করেছে মুক্তিযুদ্ধের আদর্শকে যারা ভুলন্ঠিত করে পাকিস্তানি ভাবধারায় এদেশকে পরিচালনা করেছিল তারা আজও ঘাপটি মেরে আছে। তাদের মুখোশ উন্মোচিত করতে হবে এবং ইতিহাস বিকৃতিকারীদের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত করতে হবে।“
বক্তব্যে আরো বলেন, আগস্ট বাঙালি জাতির নিকট বেদনাদায়ক একটি মাস। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ইতিহাসে নির্মমতার এক কালো অধ্যায় হিসেবে চিহ্নিত। ১৯৭৫ সালের এই দিনে মানবসভ্যতার ইতিহাসে সবেচেয়ে নিকৃষ্ট ও ঘৃণ্যতম হত্যাকাণ্ডের মধ্য দিয়ে বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। বুলেটের আঘাতে স্তব্ধ করে দেওয়া হয় বাঙালির অধিকার প্রতিষ্ঠার মহানায়ককে। তারপরও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে এবং যাবেই।
 আলোচনা সভা শেষে চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার প্রতিটি ওয়ার্ডে  বিভিন্ন স্থানে খাবার বিতরণ করা হয়।তিনি পৌর আওয়ামী লীগ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন এর নেতৃবৃন্দ এসেছেন সবাইকে ধন্যবাদ জানান।
 এসময় উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামীলীগ’র  সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন আহামেদ, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, এ্যাড শামসুজ্জোহা,হাবিবুর রহমান লাভলু, সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান,মাসুদুজ্জামান লিটু, দপ্তর সম্পাদক এ্যাড আবু তালেব বিশ্বাস, উপ-প্রচার সম্পাদক শওকত আলী বিশ্বাস, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক এ্যাড তালিম হোসেন, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক আরশাদ উদ্দিন আহামদে চন্দন, কার্যনির্বাহী সদস্য পিপি এ্যাড বেলাল হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগ এর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এবিএম জহুরুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার, ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আলাউদ্দিন হেলা, পৌর সকল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ এর সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক বৃন্দ, চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী যুবলীগের সাবেক আহবায়ক আরেফিন আলম রঞ্জু, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের, আব্দুর রশিদ, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক জি.এস রাসেদুজ্জামান বাকি, যুবলীগ নেতা টুটুল, জাতীয় শ্রমিক লীগ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি মো. আফজালুল হক বিশ্বাস ও সাধারন সম্পাদক রিপন মন্ডল, মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা নুরুন্নাহার কাকলী, জাতীয় মহিলা সংস্থা চুয়াডাঙ্গার সভাপতি নাবিলা রুকসানা ছন্দা, সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহাজাদী মিলি, পৌর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া সাহাব, রীনা খাতুন, যুব মহিলা লীগের আহবায়ক আফরোজা পারভীন, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গরীব রুহানী মাসুম, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগ এর সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক, সহ-সভাপতি শাহাবুল হোসেন, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ফিরোজ জোয়ার্দ্দার, সাবেক প্রচার সম্পাদক আব্দুর রহমান, ছাত্রলীগ নেতা অয়ন হাসান জোয়ার্দ্দার, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক গ্রন্থনা ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি মেহেদী হাসান হিমেল মল্লিক, রেফায়েত হোসেন রাজিব, সাবেক স্কুল ও ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক রাজু আহম্মেদ, জেলা ছাত্রলীগ নেতা সোয়েব রিগান, পৌর ছাত্রলীগ নেতা তানভির আহম্মেদ সোহেল, ইমদাদুল হক আকাশ, মুন্না, সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা সোয়েব স্বাধীন, মিঠুন, সদর থানা ছাত্রলীগ নেতা রেদওয়ান আহম্মেদ রানা, প্রান্ত, টোকন, মোমিন, জান্নাত, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ চুয়াডাঙ্গা জেলার সাবেক আহবায়ক সাইফুল ইসলাম রানা, বর্তমান সহ-সভাপতি সিরাজুল ইসলাম মিন্টু, সহ সভাপতি রাশেদ, সাধারণ সম্পাদক ওয়াসি হাসান রাজিব, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ফিরোজ হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক তানজিল হাসান বারেক, সাংগঠনিক সম্পাদক ওমর ফারুক, দপ্তর সম্পাদক আল নোমান, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক রামিম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আব্দুল করিম, গবেষনা সম্পাদক মিলন, সুমন, ইমন, রাতুল, আফরিজ, আলম, ফিরোজ, মিরাজ, নাইম, আগুন, পরশ, সারাফাত, রামিম, ইভন, দিপু সহ অঙ্গ সহযোগী সংগঠন ও ভাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতাকর্মিরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *