আলমডাঙ্গা অফিস : অবাধ সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে আলমডাঙ্গা উপজেলার ডাউকী ইউনিয়ন পরিষদের উপ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী তরিকুল ইসলাম বিজয়ী হয়েছেন।  । ২০ অক্টোবর মঙ্গলবার এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।  নির্বাচনের   প্রাপ ফলাফলের ভিত্তিতে বেসরকারিভাবে তরিকুল ইসলামকে বিজয়ী ঘোষণা করা ।  উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার এমএজি মোস্তফা ফেরদৌস ফলাফল ঘোষণা করেন। আলমডাঙ্গার ডাউকি ইউনিয়ন পরিষদের উপ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হয় সকাল ৯টা থেকে। বিকেল ৫টা পর্যন্ত ইউনিয়নের ৯টি কেন্দ্রে একটানা ভোট গ্রহণ করা হয়।
বিজিবি র্যার পুলিশের কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে ভোটাররা নির্বিঘ্নে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট প্রদান করেন। এপিবিএন,ব্যাটেলিয়ন আনসার সমন্বয়ে গঠিত তিনটি করে মোবাইল টিম, এক প্লাটুন বিজিবি ও র‍্যাবের ২টি টিম নির্বাচনি এলাকায় সার্বক্ষণিক দ্বায়িত্ব পালন করেন।  তাছাড়া ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে সার্বক্ষণিক মাঠে ছিলেন আলমডাঙ্গা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হুমায়ুন কবীর, চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শিবানী সরকার ও জান্নাতুল ফেরদৌস। সারাদিনই নির্বাচনি এলাকায় ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কনক কুমার দাস, আলমডাঙ্গা থানা অফিসার ইনচার্জ আলমগীর কবীর। তাছাড়া, আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার লিটন আলী।
এদিকে  নির্বাচনে  আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতিকের তরিকুল ইসলাম ৪৮৩৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতিকের নাজমুল হুসাইন পেয়েছেন ৪০২৫ ভোট। এছাড়াও অপর প্রতিদ্বন্দি প্রার্থী বিএনপির ধানের শীষের ইউনুস আলী পেয়েছেন ৭২৪ ভোট,স্বতন্ত্র প্রার্থী  ঘোড়া প্রতিকের আব্দুল কাদের রানা পেয়েছেন ৮৩৭ ভোট,স্বতন্ত্র প্রার্থী মোটর সাইকেল প্রতিকের নিজাম উদ্দিন পেয়েছেন ২০৪ ভোট। নির্বাচন প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ লিটন আলী জানান, সুষ্ঠ ও শান্তিপূূণ পরিবেশে  নির্বাচন অবাধ ও নিরপেক্ষ হয়েছে । ভোটারদের উপস্থিতির হারও ছিল খুব ভালো। 
এদিকে নির্বাচনে বিজয়ী আওয়ামীলীগ প্রার্থী তরিকুল ইসলাম তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন,মানুষ নৌকায় ভোট দিয়ে আমাকে বিজয়ী করেছেন। এজন্য আমি ইউনিয়নবাসীর প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।  দলমত নির্বিশেষে সকলকে নিয়ে ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়নে কাজ করে যাবো।