স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় হামরুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন অফিস ও পৌরসভার আয়োজনে গতকাল শনিবার সকাল ১০ টায় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল প্রাঙ্গণে এ ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করা হয়। এ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন এবং ক্যাম্পেইনের শুভ উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি। এ সময় তিনি বলেন, আগে ডায়রিয়া, ম্যালেরিয়াসহ বিভিন্ন রোগে মানুষ মারা যেতো। একজনের দাফণকার্য শেষ করে বাড়ি এসে শুনতাম পাশের বাড়ির আরেকজন মারা গেছে। বর্তমানে উন্নত চিকিৎসা ব্যবস্থার করনে এখন আর মানুষের এ ধরনের রোগ হয়না এবং হলেও উন্নত চিকিৎসায় সারিয়ে তোলা সম্ভব হয়। আগে অধিকাংশ শিশুরই হাম হতো। সরকার যে উদ্দোগ দিয়েছেন টিকা দানের মাধ্যমে এর নির্মূল করার। আজ বিশ্ব করোনাভাইরাসের চ্যালেঞ্জের মুখে আছে। চেষ্টা চলছে প্রতিরোধের। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত প্রচেষ্টায় সরকারের প্রতিটা সেক্টরে উন্নয়ন ঘটেছে। বর্তমান স্বাস্থ্য কর্মীরা যে ধর্মঘট করছে তাদের উদ্দেশ্য করে প্রধান অতিথি বলেন, আপনারা কাজে ফিরে আসেন। আমাদের মাননীয় প্রথানমন্ত্রী অবশ্বই আপনাদের দাবী মেনে নিবেন। আপনারা মানুষের সেবা দেয়ার জন্য চাকরিতে যোগদান করেছেন। আজ আপনাদের কোন সন্তান যদি অসুস্থ হয় তাহলে আপনারা কি করবেন ? কার কাছে যাবেন ? সেই কথা মাথায় রেখে আপনারা মানুষের সেবার উদ্দেশ্যে কাজে যোগদান করেন।
আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গার জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার, সিভিল সার্জন ডা. এএসএম মারুফ হাসান, চুয়াডাঙ্গার পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবু তরেক, পরিবার পরিকল্পনার উপ পরিচালক দিপক কুমার সাহা, চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট(গাইনি এ্যান্ড অবস) ডা. আকলিমা খাতুন,চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. সাজিদ হাসান, শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. মাহাবুবুর রহমান মিলন, সিভিল সার্জন অফিসের এমওসিএস ডা. আউলিয়ার রহমান, পৌরসভার প্যানেল মেয়র মুন্সি রেজাউল করিম খোকন, পৌরসভার টিকাদান সুপারভাইজার আলী হোসেনসহ আরও অনেকে। আলোচনা সভা শেষে শিশুদের টিকাদানের মাধ্যমে হাম রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।
উল্লেখ্য শনিবার শুরু হওয়া হাম রুবেলা ক্যাম্পেইন চলবে ২৪ জানুয়ারী পর্যন্ত। চলতি বছর জেলায় মোট ৩ হাজার ৬শ’ ৭২ টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ৯ মাস থেকে ১০ বছরের মোট ২ লাখ ৩০ হাজার শিশুকে এ টিকা দেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *