স্টাফ পিপোর্টার: ‘বিট পুলিশিং বাড়ি বাড়ি, নিরাপদ সমাজ গড়ি’ শ্লোগানে চুয়াডাঙ্গায় বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশ ও বিট পুলিশিংয়ের আয়োজনে শিল্পকলা একাডেমির মুক্ত মঞ্চে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন আশিকুর রহমান। চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি ড. খ. মুহিদ উদ্দিন বিপিএম (বার)।
আলোসভায় তিনি বলেন, সৃষ্টিকর্তা আমাকে এই মাটি দিয়ে সৃষ্টি করেছে। আমি এই মানচিত্রকে ভালবাসি, এই পাতাকাকে ভালবাসি, আমি এ দেশের ১৬ কোটি মানুষকে শ্রদ্ধা করি। যিনি আমাদের এই মানচিত্র দিয়েছেন তিনি আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। যিনি আমাদের বাঙ্গালী জাতির জন্য নিজের জীবন দিয়েছেন। সেই জাতির পিতাকে শ্রদ্ধা করি। বিট পুলিশিং সম্পর্কে তিনি বলেন, সার্ভিস নেয়ার জন্য মানুষ দুরে যাবে না। কারন, মানুষ হচ্ছে এ রাষ্ট্রের মুনিব। প্রজাতন্ত্রের মালিক এ দেশের জনগণ। সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় সেবা পৌছে দেয়ার জন্য বিট পুলিশিং গঠন করা। পুলিশের বেতন হয় এদেশের জনগণের টাকায়। এদেশের জনগণের নিরাপত্তা দেয়ায় পুলিশের প্রধান কাজ। পুলিশের কাজ হবে শেষে নয়, প্রথমে মানুষকে সেবা দেয়া। জীবননগরের উথলী সোনালী ব্যাংক শাখায় দিনে দুপুরে ডাকাতির ঘটনা সম্পর্কে তিনি বলেন, ডাকাতির ঘটনায় জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। ক্লু ধরে মামালার বিষয়ে অনেকদুর এগিয়েছেন পুলিশ। অপরাধী যেই হোক তাকে শাস্তির আওতায় আনা হবে।
আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ সামসুল আবেদিন খোকন, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাস, সাংবাদিক শাহ আলম সনি, আলমডাঙ্গা পৌরসভার কাউন্সিলর মতিয়ার রহমান প্রমুখ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ (প্রশাসন) আবু তারেক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) কনক কুমার দাস, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জিহাদ ফখরুল আলম খানসহ প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক নেতর্ৃবৃন্দ এবং গণমাধ্যম কর্মীরা।
অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুন্সী আবু সাঈফ।