স্টাফ রিপোর্টার:চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদা উপজেলার বড় দুধপাতিলা গ্রামের রেলগেটের অদূরে ট্রেনের কেটে অজ্ঞাত এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২১ ডিসেম্বর) সকাল ১০ টার দিকে এদূর্ঘটনা ঘটে। বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃতবলে ঘোষণা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, সকালে দুধপাতিলা রেলগেটের অদূরে অজ্ঞাত যুবকের বাম পা বিচ্ছিন্ন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। পরে তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়ার কিছুক্ষন পর তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় যুবক একরামুল বলেন, সকালে খুলনা থেকে ছেড়ে আসা একটি ট্রেনের ধাক্কায় তার পা বিচ্ছিন্ন হয়। তার পরিচয় পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় ভ্যান চালক বলেন, সকালে ট্রেনে কেটে বড় দুধপাতিলা রেলওয়ে গেটের একটু দূরে পড়েছিল। তার বাম পা বিচ্ছিন ছিল। আমার ভ্যানে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। তবে কোন ট্রেনে এঘটনা ঘটেছে তা জানিনা।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাহাবুবুর রহমান বলেন,
তার বাম পা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরনের কারণে হাসপাতালে নেয়ার পূর্বেই তার মৃত্যু হয়েছে।

পুরাদহ রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ জসিম উদ্দিন বলেন, চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার বড় দুধপাতিলা রেলওয়ে গেটের অদূরে অজ্ঞাত এক যুবক ট্রেনে কেটে মৃত্যু হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে সরকারি নিয়মকানুন অনুযায়ী দাফন করা হবে।