চুয়াডাঙ্গায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধ এবং লকডাউন কার্যকর করার লক্ষ্যে জেলা কমিটির সদস্যবৃন্দ ও অংশীজনদের সাথে মতবিনিময় সভায় খাদ্য সচিব নাজমানারা খানুম


স্টাফ রিপোর্টার: করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ এবং লকডাউন কার্যকর করার লক্ষ্যে জেলা কমিটির সদস্যবৃন্দ ও অংশীজনদের  সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকাল ৪টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় জুম ক্লাউড অ্যাপে সংযুক্ত থেকে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, করোনা প্রতিরোধে চুয়াডাঙ্গা জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, মানুষের জীবন আগে বাঁচাতে হবে। স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধি করা, স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং নিয়ম-নীতি মেনে নিজেকে ও অন্যকে সুরক্ষা করতে হবে। দেশের মানুষের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড যেন সচল থাকে এ বিষয়ে সরকার যথেষ্ট সচেতন। তবে মানুষের জীবনটা আগে।
তিনি আরও বলেন, ‘স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধি করা, স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও নিয়ম-নীতিগুলো মেনে চলা এবং সেভাবে নিজেকে সুরক্ষিত করা এবং অন্যকে সুরক্ষিত রাখা। এটা অবশ্যই সকলকে করতে হবে। আমরা ইতিমধ্যে করোনা নিয়ন্ত্রণের জন্য অনেকগুলো নির্দেশনা দিয়ে দিয়েছি। এই নির্দেশনা যাতে যথাযথভাবে মানুষ পালন করে সেদিকে সবাইকে দৃষ্টি দিতে হবে।
সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। সভাপতির বক্তব্যে তিনি বলেন, সরকার সবার কথা ভাবছে। আসলে আমাদের এই মুহুর্তে জীবনের কথা ভাবতে হবে। এই সাতদিন যদি আমরা কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারি, তাহলে হয়ত সরকার লকডাউনের মেয়াদ বাড়াবে না। এ ই সাতদিন আমরা সরকারি সকল নির্দেশনা কঠোরভাবে মেনে চলবো। লকডাউনে চুয়াডাঙ্গায় পশুর হাট বসবে না,  ইজিবাইক, সিএনজি ও অবৈধ যানবাহন চলাচল করতে পারবে না এবং কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে। তবে, কৃষি উৎপাদিত পণ্য পরিবহনে কোনো বাঁধা থাকবে না।
এ সময় চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মনিরা পারভীন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সাজিয়া আফরিন, চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র জাহাঙ্গির আলম মালিক খোকন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিকুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। সভায় আরও বক্তব্য রাখেন, জেলা দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইবরুল হাসান জোয়ার্দ্দার ইবু, সমবায় নিউ মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মিজাইল জোয়ার্দ্দার, জেলা মর্কেটিং অফিসার শহিদুল ইসলাম, সাংবাদিক শাহ আলম সনি, রফিকুল ইসলাম, আহসান আলম, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক এবিএম রবিউল ইসলাম, জেলা অটোবাইক শ্রমিক কল্যাণ সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম সাজু প্রমুখ।