স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার  খাদিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মুজিব শতবর্ষ ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার বিকাল ৩ টায় বটিয়াপাড়া শিয়ালমারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে বটিয়াপাড়া ফুটবল একাদশ  বনাম খাদিমপুর একাদশের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি  লড়াই  অনুষ্ঠিত হয়েছে। খেলার মাঠে প্রায় হাজার হাজার দর্শকের ভীড় কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়।ফাইনাল ম্যাচে উঠা দুটি দল স্ব স্ব দলের দর্শক,খেলোয়াড় ওভব্যান্ড পার্টি সহকারে মাঠে প্রবেস করেন। , স্কুল প্রাঙ্গণে বীর মুক্তিযোদ্ধা,সাবেক খেলোয়াড়বৃন্দ,শিক্ষক,জনপ্রতিনিধিদের আলদা বসার ব্যাবস্থা ছিল এবং  সেরা দর্শক এরও ছিল। টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলার উদ্বোধন ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি বলেন, ভালো খেলোয়াড় হলে দেশ বিদেশে পরিচিত হওয়া যায়। অনুশীলন করলে ভালো খেলোয়াড় হওয়া যায়। এছাড়া তিনি খেলোয়াড়দের বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দেন। উক্ত ফাইনাল খেলার উদ্বোধন ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে খাদিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান বাবলুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জেলা ক্রীড়া সংস্থার অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক, খাদিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা মোজাহিদুর রহমান লোটাস। বীর মুক্তিযোদ্ধা জামসেদুর রহমান জোয়ার্দ্দার, আবু তালেব, একদিল শাহ, জিনারুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম, আনছার আলী মোল্লা, মতিউর রহমান, রবিউল ইসলাম, মরজেম মালিথা, পটক আলী। উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা আমিরুল ইসলাম, ইউনুস আলী, শিপন আলী, ওমর ফারুক, ঠান্ডু আলী, মজিবার, বকুল, মহির উদ্দিন, ইসলাম, আরিফ, জহির, আবু ছাত্তার, আনারুল মল্লিক, রোকন মাষ্টার, জলিল, জিন্নাহ, শাহিন, আসলাম, মিরাজুল, মুজাম, মিনারুল, হাসান, প্রধান শিক্ষক শাহ জাহান, সহকারি শিক্ষক আশরাফুল মাকলুকাত, শফিকুর রহমান সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।‌ উক্ত ফাইনাল খেলায় ৪নং ওয়ার্ড বটিয়াপাড়া একাদশ ও ১ও২ নং ওয়ার্ড খাদিমপুর একাদশ অংশগ্রহণ করে। নির্ধারিত সময়ের খেলায় ১/১ ড্র হলে খেলাটি ট্রাইব্রেকারে গড়াই। ১ ও ২ নং ওয়ার্ড খাদিমপুর একাদশকে ট্রাইব্রেকারে ৪/৩ গোলে পরাজিত করে ৪ নং ওয়ার্ড বটিয়াপাড়া একাদশ চ্যাম্পিয়ন হয়। চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলের হাতে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি তুলে দেন প্রধান অতিতি।ম্যাচ সেরা ও টুর্নামেন্টের সেরা গোলকিপার নির্বাচিত হন বিজয়ীদলের খালেক আহমেদ, টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন বিজয়ীদলের মিলন বিশ্বাস। আয়োজক কমিটির সভাপতি ছিলেন মুকুল জোয়ার্দ্দার। খেলা পরিচালনায় ছিলেন  জহির উদ্দিন জোয়ার্দ্দার ও ইসলাম মন্ডল। ম্যাচ রেফারি ছিলেন রিয়ান, সহকারি রেফারি ছিলেন রিজু ও লিটা। ৪র্থ রেফারি ছিলেন দিপু হোসেন সাজু ও প্রতীক। অফিস পরিচালক ছিলেন রবিউল ইসলাম ও মুক্তার জোয়ার্দ্দার। চিকিৎসকে ছিলেন  মিন্টু জোয়ার্দ্দার ইমরান হোসেন ও মনি এবং ইমন। ধারাভাষ্যকার ছিলেন ছাবিত ও আশিকুজ্জামান। জাজম্যান ছিলেন সাজিদুল। অনলাইন মিডিয়াই ছিলেন এসএফ বাদশা বুলবুল। অনুষ্ঠান পরিচালনায়  ছিলেন শিমুল হোসেন মেম্বর। এছাড়া বটিয়াপাড়া গ্রামীণ পাইপ লাইন কাজের উদ্বোধন ও বটিয়াপাড়া শিয়ালমারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন নতুন ভবনের উদ্বোধন করা হয়।