স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার দৌলতদিয়াড় ও বড়বাজারের দুটি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়েছে। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক সজল আহমেদের নেতৃত্বে গতকাল সোমবার সকাল ১০ টা থেকে বেলা ১১ টা পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ অভিযান চালিয়ে চুয়াডাঙ্গা শহরতলীর দৌলতদিয়ারের মেসার্স সওদাগর গিফট গার্ডেন ও বড়বাজারের মেসার্স রাজু ফার্মেসির মালিককে জরিমানা করা হয়।অভিযান সুত্রে জানা গেছে, গতকাল সোমবার সকাল ১০ টার দিকে চুয়াডাঙ্গা বড়বাজার পুরাতন গলির ভিতর মেসার্স সওদাগর গিফট গার্ডেনে অভিযান চালানো হয়। এ সময় সরকারকে ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে প্রচুর পরিমাণ অবৈধ বিদেশি কসমেটিকস যার কোন বৈধ আমদানিকারকের ঠিকানা ও বাংলাদেশি টাকায় মূল্য ট্যাগ দেয়া না থাকার অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর ৩৭ ধারায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং পরবর্তীতে যেন আর বিক্রয় না করে সে ব্যাপারে কঠোরভাবে সতর্ক করা হয়। ক্রেতারা এসমস্ত প্রোডাক্টের প্রকৃত মূল্য জানতে পারেনা এবং দোকানদাররা এই সব বিদেশি কসমেটিক্স এর ইচ্ছা মত দাম নেয়। এছাড়া ট্যাগ বিহীন এই প্রোডাক্টগুলো চকবাজারের নকল প্রডাক্ট হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। তাই বিদেশি কসমেটিকস কেনার আগে সবাইকে বৈধ আমদানিকারকের ট্যাগ ও মূল্য দেখে কেনা উচিত। পরবর্তীতে চৌরাস্তা মোড়ে অবস্থিত মেসার্স রাজু ফার্মেসীতে পাওয়া যায় র‍্যাকে সাজানো অনেক মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ। মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ বিক্রয়ের অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ৫১ ধারায় ৮ হাজার টাকা জরিমানাসহ অভিযানে ০২টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ১৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। নিরাপত্তায় ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের একটি টিম। 
 জনস্বার্থে এরূপ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানান সজল আহমেদ।