স্টাফ রিপোর্টারঃ গোবিন্দহুদায় মাদকের  ভয়াবহ বিস্তার  ও  যুবসমাজের চরম অবক্ষয়ে পরিনত হয়েছে। এলাকার  চিহ্নিত  মাদক  ব্যবসায়ী জাকির  – সালামের দৌরাত্ম্যের শেষ  কোথায়। 
এলাকায় একাধিক  অভিযোগের তথ্য  সূত্রে  জানা  গেছে , দামুড়হুদা উপজেলা সদরের দশমী পাড়ার আঃ কুদ্দুসের ছেলে  মাদক সম্রাট   জাকির সীমান্ত  অতিক্রম  করে  অতি কৌশলে  এনে   গোবিন্দহুদায়  জয়নুলের ছেলে মাদক ব্যবসায়ী সালামের নিকট  খুচরা বিক্রয় করে গোবিন্দহুদা সহ দামুড়হুদায় আশপাশের  যুব ছাত্র  সমাজ ধ্বংসের  দিকে এগিয়ে  যাচ্ছেন। মাদক সম্রাট  জাকির  ও  গোবিন্দহুদায়  মাদকের  বিস্তার  করে  জয়নুলের ছেলে  সালাম এলাকাতে মাদকের  অভয়ারণ্যে  পরিনত  করছে এমন  অভিযোগ  এলাকায়  কমতি ছিল  না সচেতন মহলের মুখে মুখে  । বর্তমানে মাদক  সম্রাট  জাকিরর মাদকদ্রব্য   মাদক ব্যবসায়ী সালাম খুচরা মূল্যে নিজ  গ্রামের ওলিতে – গলিতে এলাকার  স্থানীয় মাদক সেবী সহ আশপাশের  যুব ও ছাত্র  সমাজে বিস্তার  ঘটিয়ে  চলছ  । অতি কৌশলে  গ্রামের মাদক সেবীদের আনাগোনা।   তবে মাদক ব্যবসায়ী সালামের  মাদকদ্রব্য  বিক্রয় হয় মোবাইল  ফোনে যোগাযোগের মাধ্যমে । গত  মাসে  দামুড়হুদা মডেল থানার সুযোগ্য  অফিসার  ইনচার্জ  আঃ খালেরর নেতৃত্বে এস আই তৌহিদর রহমান শেখ   গোবিন্দহুদায় হানা দিলে মাদকদ্রব্য ফেন্সিডিল ও মাদকের  ব্যবহৃত ১ টি মটর সাইকেল  উদ্ধার  করেন তবে কৌশলে  মাদক  ব্যবসায়ী  জাকির  ও  সালাম পালিয়ে যান। মাদকদ্রব্য  আইনে এ দুই  মাদক ব্যবসায়ীর নামে একাধিক  মামলা রয়েছেন বলেও জানা গেছে৷এলাকার সচেতন  মহল বলছেন সীমান্ত অতিক্রম  করে  মাদক সম্রাট  জাকির  কি ভাবে ফেন্সিডিল আনতে সক্ষম  হচ্ছে?  কোন অদৃশ্য  শক্তি  মাদকদ্রব্যের সম্রাট  জাকির দেশের যুব সমাজের ধ্বংসের  দ্বারপ্রান্তে পৌঁছানোর  কাজের সহযোগিতা করছেন?  কেনই বা জাকির – সালামের  মতো মাদক ব্যবসায়ী আইনের  ধোরা ছোঁয়ার বাইরে থেকে  যাচ্ছেন?  দামুড়হুদার গোবিন্দহুদাতে মাদকের অভয়ারণ্যে ধ্বংসের  জন্য  মাদক সম্রাট  জাকির  ও  মাদক ব্যবসায়ী সালামের মাদকের দৌরাত্ম্যে  বন্ধ  করে  দ্রুত আইনের  আওতায়  আনার  দাবি  জানিয়েছেন এলাকার  সচেতন মহল।  নাম প্রকাশ  না করার শর্তে  বেশ ক ‘ একজন সচেতন  মহল  জানান – দামুড়হুদার জাকির আর সালাম চিহ্নিত  মাদক  ব্যবসায়ী, মাদক  ব্যবসায়ী হিসেবে  উপজেলার  মাদকাসক্তরা সবাই  চেনেন হইতো। মাদকদ্রব্য  বিক্রয়ে তাদের জুরি মেলা দ্বায়। বিশস্ত সূত্রে জানা  গেছে   সীমান্তে মাদক ব্যবসায়ীরা ১ টি  ফেন্সিডিল  বিক্রয় করছেন ৭০০-৮০০ টাকা, এরপর  থেকে যায় বিজিবি পুলিশের  নজর। এজন্য  যে সকল মাদকাসক্তরা জানেন যে দামুড়হুদার গোবিন্দহুদাতে ফেন্সিডিল বিক্রি  হচ্ছে। এরপর বিভিন্ন  মাধ্যমে করে থাকেন যোগাযোগ  যোগাযোগের এক পর্যায়ে  মিলে যান মাদকাসক্তদের সাথে খুচরা   মাদক ব্যবসায়ী গোবিন্দহুদা গ্রামের  জয়নুরের ছেলে সালামের। তবে সীমান্তের মাদক ব্যবসায়ীদের থেকে দামটা বেশি। সীমান্ত  এলাকায়  বিক্রয় হয় ১ টি ফেন্সির দাম ৭০০-৮০০ টাকা  আর মাদক সম্রাট  জাকিররের ফেন্সিডিল বিক্রয় করেন ১০০০-১১০০ টাকা। মাদকাসক্তরা একটু নিরাপদে দাম  বেশি  হলেও  গিলে  জান বেশি দাম হলেও। সালাম চিৎলা প্রাথমিক  বিদ্যালয়ের  মাঠে,গোবিন্দহুদা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সংলগ্ন সহ  গোবিন্দহুদায় বিভিন্ন  মাঠে ও প্রামের মাঝে  বিক্রয় করে চলেছেন। চুয়াডাঙ্গার মানবিক  পুলিশ  সুপার  জাহিদুল  ইসলাম  ও দামুড়হুদা মডেল থানার  অফিসার  ইনচার্জ  আঃ খালেকের নিকট দ্রুত আইনের  আওতায়  আনার  দাবি  জানিয়েছেন  এলাকা বাসীর সচেতন মহল।