paschimanchal-news-4

গাংনী অফিস: মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ষোলটাকা ইউনিয়নে হতদরীদ্রদের মাঝে বিনামূল্যে সরকারি চাউল বিতরণে নির্দিষ্ট পরিমানে চাউল না দিয়ে ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।করোনা বিস্তার রোধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ত্রাণ তহবিল থেকে কর্মহীন মানুষের মাঝে এ চাউল বিতরণ করা হচ্ছে বলে জানান ষোলটাকা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনি।

প্রায় আড়াই হাজার কর্মহীন মানুষের মাঝে এ চাউল বিতরণ শুরু হয় রবিবার সকাল ১০টা থেকে। প্রতিদিন ৮শ’ মানুষের মাঝে তিন দিনে প্রায় আড়াই হাজার মানুষের মাঝে এ চাউল বিতরণ করা হবে। তবে সকাল থেকে চাউল বিতরণের কথা বললেও ঘন্টার পর ঘন্টা দাড়িয়ে থেকে চাউল না পেয়ে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েন।এদিকে সুবিধাভোগিরা জানান, সরকার জনপ্রতি ১৫ কেজি করে চাউল বরাদ্দ দিলেও এখানকার মেম্বররা কাউকে ১০ কেজি আবার কাউকে ১২ কেজি করে চাউল দিচ্ছে। প্রতিবাদ করতে গেলে তারা হুমকি দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন।

এদিকে চাউল বিতরণের সময় বানিয়াপুকুর গ্রামের আলি মেম্বর চাউল ওজন করে দিতে দেখা যায়। ওজনে কম দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি কোন সদুত্তোর না দিয়ে বিষয়টিকে এড়িয়ে যাওয়ার জন্য সাংবাদিকদের অনুরোধ করেন।তবে ভুক্তোভোগিরা বলেন সরকারি চাউল দিনে দুপুরে সবার সামনে চুরি করছে এটার প্রতিবাদ করতে গেলে তাকে আর চাউল দেবেনা এবং গুন্ডা বাহিনী দিয়ে মারের হুমকি দিচ্ছে বলেও তারা জানান।ইউনিয়ন পরিষদের সচিব জহুরুল ইসলামের সাথে জানতে চাইলে কম দেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে তিনি বলেন স্থানীয় মেম্বররা তালিকাভুক্তো মানুষের বাইরেও অনেকের নাম দিয়েছে সেজন্য তারাই একেকজনের উপর বরাদ্দকৃত চাউল কমিয়ে আরেকজনকে দিচ্ছে। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন যদিও এটা বিধি সম্মত নয় তারপরও তারা জোর করে এমন করছে।এদিকে চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনি বলেন, স্থানীয় মেম্বররা সরকার দলীয় লোক তাদের বিরুদ্ধে কথা বলা আমার পক্ষে সম্ভব নয়।উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম শাহ নেওয়াজ এর সাথে জানতে চাইলে তিনি বলেন বিষয়টি দেখছি।