গাংনীতে গরমের শুরুতে আখের রসের কদর বেড়েছে

গাংনী অফিস: শীত শেষে শুরু হয়েছে গরম।বেড়েছে তাপমাত্রা। আর তাপমাত্রা বাড়ার শুরুতেই মেহেরপুরের গাংনীতে আখের রসের কদর বেড়েছে। দিনের রৌদ্র তাপমাত্রা যেনো অসহনীয়। তাই গরমের এ দিনে একটু ক্লান্তি মেটাতে আখের রসের প্রতি মানুষের কাছে চাহিদা বেড়েছে।চাহিদা বাড়ার সাথে সাথে রসের দামও বেড়েছে।গাংনী উপজেলা শহরসহ বিভিন্ন এলাকার ছোট ছোট বাজারগুলোতে আখ মাড়াইকরণ যন্ত্র দিয়ে আখের রস বিক্রি করছে ব্যবসায়ীরা।
এছাড়াও গ্রামেও আখের রস বিক্রি করছে ব্যবসায়ীরা। রস বিক্রেতারা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের মাঠ থেকে আখ পিচ প্রতি প্রাইকারি দরে ১০টাকায় কিনে নিয়ে আসছে। পরে বাজারে নিয়ে এসে প্রথমে আখের গায়ের ছাল বা ময়লা পরিস্কার করে ধুয়ে নেয়। এরপর আখ মাড়াইকরণ যন্ত্র দিয়ে পিষ্ট করে ছেঁকে রস সংগ্রহ করছে। এবং সে রস গিলাশ প্রতি ১০ টাকা দরে বিক্রি করছে।
গাংনী শহরসহ বিভিন্ন এলাকার বাজার বা সড়কের মোড়ে মোড়ে এসব ব্যবসায়ীরা রস বিক্রি করে আসছে। তাপমাত্রার বেড়ে যাওয়ায় মানুষ দামের দিক না দেখে ক্লান্তি নিতে রসের প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছে। সে কারণে সকাল গড়িয়ে দুপুর হলেই রস খেতে ভীড় জমাচ্ছে সাধারণ মানুষ।
গাংনী উপজেলা শহরের রস বিক্রেতা বিপ্লব হোসেন জানান, গাংনী এলাকায় আগের মতো আর আখ চাষ হয়না। যদিও কিছু কিছু গ্রামের মাঠে পাওয়া যায়। তাও আবার চড়া দামে কিনতে হয়। এ কারণে রসের দাম সে ভাবে নেয়া হয়ে থাকে।
উপজেলার হাড়িয়াদহ গ্রামের কৃষক চাঁদ আলী জানান, আগে ৪ বিঘা জমিতে আখ চাষ করতাম। কিন্তু আখ ক্রয় কেন্দ্রে বিক্রি করতে গিয়ে আখের সঠিক মূল্য পেতাম না। এ কারণে আখ চাষ বন্ধ করে এখন অন্য ফসলের চাষাবাদ করছি।
কৃষি বিভাগ সূত্র জানায়,আখের চাষ আবার বৃদ্ধি পাচ্ছে। আখ চাষ বাড়ানাের জন্য কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করার পাশাপাশি সরকার আখের মূল্য বৃদ্ধি করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *