স্টাফ রিপোর্টার: কুষ্টিয়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে মৌলবাদিদের বিরুদ্ধে চুয়াডাঙ্গায় বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কেন্দ্রীয় যুবলীগের নির্দেশনায় গতকাল শনিবার রাতে চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের আয়োজনে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে গতকাল রাত সাড়ে ৮ টায় চুয়াডাঙ্গা যুবলীগের কার্যালয়ের সামনে থেকে জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দারের নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। বিক্ষোভ মিছিলটি চুয়াডাঙ্গা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একইস্থানে এসে সমাপ্তি হয়। এ সময় যুবলীগের নেতাকর্মীরা মৌলবাদিদের বিরুদ্ধে শ্লোগান তুলে কুষ্টিয়াসহ দেশের বিভিন্নস্থানে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদ জানায়। বিক্ষোভ শেষে যুবলীগের কার্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করেন। প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, এ ধরনের নোংরা কাজ কোনোভাবেই বরদাশত করা হবে না। যারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছেন এবং মদদ দিয়েছেন তাদের প্রত্যেককেই খুঁজে বের করে কঠিন শাস্তির আওতায় আনতে হবে। যে বা যারা ভাঙচুর করেছেন তাদের কাউকে এক চুলও ছাড় দেওয়া যাবেনা।’ স্বাধিনতার পক্ষের শক্তি এ ধরনের নেক্কারজনক কাজ করতে পারে না। তাঁরা অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করার জন্য এ ধরনের কাজ করছে। বর্হিবিশ্বের কাছে তাঁরা দেশের ভাবমূর্তি খারাপ করতে চাচ্ছে। আসলে এর পিছনে তাঁদের খারাপ উদ্দেশ্য আছে। পৃথিবীর সব মুসলিম দেশগুলোতেই ভাস্কর্য থাকলেও বাংলাদেশে জাতির জনকের ভাস্কর্য নিয়ে ধর্ম ব্যবসায়ীরা বিভ্রান্ত্রি সৃষ্টির চেষ্টা করছে। জামায়াত-শিবির ও হেফেজত ঐক্যবদ্ধ হয়ে আবারও দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টির ষড়যন্ত্র করছে।
চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী যুগলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার আরও বলেন, এই দেশ এখন সমৃদ্ধির পথে। উন্নয়নের উচ্চশিখরে পৌছে যাচ্ছে। সেই উন্নয়নকে থামানোর এক নোংরা ষড়যন্ত্র চলছে। যা আমরা মেনে নোবো না। এখন থেকে চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী যুবলীগের প্রত্যেকটি নেতাকর্মীকে সতর্ক থাকতে হবে। আমরা আগামীকাল বিকাল তিনটায় আবারো মিছিল ও বিক্ষোভ সমাবেশ করবো। আমরা বসে থাকবো না। প্রয়োজনে আরো কঠোর আন্দোলনে যাওয়া হবে।এ সময় তিনি আরও বলেন, আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে যুবলীগের সকল নেতাকর্মীদের একত্রিত হয়ে নৌকা প্রতিকের বিজয় নিশ্চিত করতে হবে।

চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জিল্লুর রহমান’র পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য হাফিজুর রহমান হাপু,আজাদ আলী, সাজেদুর রহমান লাভলু, আবুবক্কর সিদ্দিক আরিফ, আলমগীর আজম খোকা, শরীফ হোসেন দুদু, অ্যাড. তসলিম উদ্দিন আহম্মেদ ফিরোজ, যুবলীগ নেতা পিরু মিয়া, মাসুদুর রহমান মাসুম, দরুদ হাসান।উপস্থিত ছিল বিপ্লব হোসেন, আব্দুল আলিম ফটিক, শুভ, সুইট, শেকত, টুটুল, কবীর, লেবু, সজল, নোমান, বাচ্চু, আসাদ, জুয়েল, আশিক, ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বনফুল, আবুল কালাম, কাছেদ, সুমন, শরীফসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।