আলমডাঙ্গা অফিস :আলমডাঙ্গার বন্ডবিল রেলগেটের অদূরে পৌর সিমানা পিলারের নিকট থেকে প্রাইভেটকার জব্দ করে বিপুল পরিমান সোনার গহনা উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরের দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অফিসার ইনচার্জ আলমগীর কবিরের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ওই স্থানে অভিযান চালিয়ে প্রাইভেটকারসহ ৩জনকে আটক করে। এ সময় প্রাইভেটকার তল্লাশি করে ২কেজি ৫শ’ ৮৫ গ্রাম সোনার গহণা উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধারকৃত গহণার মূল্য প্রায় দেড় কোটি টাকা।
পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন,সিমান্তবর্তী এলাকা থেকে স্বর্ণের গহণার একটি বড় চালান আসছে। সংবাদের ভিত্তিতে আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর কবিরের নেতৃত্বে থানার এসআই আব্দুল গাফ্ফার,এসআই তৌকিরসহ একদল পুলিশ ফোর্স বেলা আড়াইটার দিকে বন্ডবিল রেলগেটের অদূরে পৌর সিমানা পিলারের নিকট অবস্থান গ্রহণ করেন। এ সময় ঢাকা মেট্রো গ- ১৭-৮৩৩২ নম্বরের প্রাইভেট কারটি দ্রুত চলে যাবার চেস্টা করলে পুলিশ রাস্তায় ব্যারিকেট দিয়ে কারটি থামায়। প্রাইভেট কার তল্লাশি চালিয়ে চালকের সিটের নিচ থেকে কভারের মধ্যে লুকিয়ে রাখা ২ কেজি ৫শ’ ৮৫ গ্রাম সোনার গহণা উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় প্রাইভেটকার থাকা মাদারিপুর জেলার জামালপুর জেলার বাবু হাওলাদরের ছেলে সুমন হাওলাদার (২৯), চুয়াডাঙ্গা পৌরএলাকার ২ নং ওয়ার্ডের বনানিপাড়ার লিপন হোসেনের ছেলে সম্রাট হোসেন (২১) ও দর্শনা শ্যামপুর গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে বাপ্পি হোসেন (৩০) কে আটক করে পুলিশ। উদ্ধার হওয়া ২১৫ ভরি সোনার গহণার মুল্য দেড় কোটি টাকা। এদিকে সংবাদ পেয়ে আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রনি নূর আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এদিকে আটকের পর প্রাইভেটকার জব্দ করে তাদের আলমডাঙ্গা থানায় নিয়ে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা হয়েছে।