দৈনিক পশ্চিমাঞ্চল ডটকম

অষ্ট্রেলিয়ান বিজ্ঞানীদের সফলতা, ২০ মিনিটে করোনা নির্ণয়ক কিট উদ্ভাবন

আন্তর্জাতিক

পশ্চিমাঞ্চল মনিটর: মাত্র ২০ মিনিটে করোনা নির্ণয়ের কিট উদ্ভাবন করেছেন অষ্ট্রেলিয়ার বিজ্ঞানীরা। মোনাশ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা এ কিট উদ্ভাবন করেছেন। এ কিটে রক্ত পরীক্ষা করে কোভিড নির্ণয় করা হয়। এ ধরনের আবিষ্কার এটাই বিশ্বে প্রথম বলে দাবী করছেন তারা।
গবেষকরা বলছেন, বর্তমান কেউ নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমিত কিংবা অতীতে সংক্রমিত হলেও এ কিটে ধরা পড়বে। বিজ্ঞান বিষয়ক সাময়িকী ‘এসিএস সেন্সর’ গতকাল শুক্রবার এ বিষয়ে বিশেষ একটি প্রবন্ধ প্রকাশ করেছে।
প্রকাশিত ওই প্রবন্ধে বলা হয়, ২৫ জনের রক্ত বা লাল রক্তের সেল (প্লাজমা) পরীক্ষা করে সঠিক ফলাফল পাওয়া গেছে। নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণ দীর্ঘ হতে পারে। দ্রুত পরীক্ষা ও রোগ নির্ণয় এ ভাইরাস সংক্রমণ কমাতে পারে। বর্তমানে সোয়াব পরীক্ষা করে এ ভাইরাস নির্ণয় করা হয়।
নতুন এই পদ্ধতিতে রক্তের নমুনা পরীক্ষায় ভাইরাসের পরিমাণ এবং কেউ সম্প্রতি আক্রান্ত হয়ে সেরে গেলে তাও জানা যাবে। প্রতি ঘণ্টায় শত শত পরীক্ষা করা যাবে। অ্যান্টিবডী পরীক্ষায়ও করা যাবে এ কিটে।
সুত্রে প্রকাশ, উপর বর্ণিত ওই গবেষণায় নেতৃত্ব দেয় বায়োপিআরআইএ ও মোনাশ বিশ্ববিদ্যালয়ের কেমিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্ট। গবেষণায় যুক্ত ছিলেন বায়োন্যানো সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজী, সিবিএনএস’র এআরসি সেন্টার অব এক্সিলেন্সীর গবেষকরা।
সুত্র আরও জানায়, বিশ্বে এ পর্যন্ত নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ১৩ দশমিক ৮ মিলিয়ন মানুষ শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছে প্রায় ৬ লাখ মানুষ। অষ্ট্রেলিয়ায় ১১ হাজারের বেশী শনাক্ত ও মারা গেছে১১৬ জন মানুষ। বিশ্বে সর্বপ্রথম গত বছর এ ভাইরাসটি আবির্ভূত হয় চীনে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *